ইপিজেড থানাস্থ বন্দরটিলায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী সঞ্জয় ধরের খুনের রহস্য উদঘাটন

বিশেষ সংবাদ:২০জুলাই
গত ২৩শে জুন ইপিজেড থানায় রুজুকৃত ব্যবসায়ী সঞ্জয় ধর হত্যা মামলার রহস্য দ্রুত সময়ে উদঘাটন করেছেন ইপিজেড থানা পুলিশের চৌকস একটি দল।

মামলার এজাহারের তথ্যমতে গত ২১শে জুন গভীর রাত থেকে ২৩শে জুন সকাল এর মধ্যে কে বা কাহারা ব্যবসায়ী সঞ্জয় ধরকে নগরীর বন্দরটিলায় তার নিজ দোকান, মনিশ্রী জুয়েলার্সের ভিতর প্রবেশ করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে হত্যা করে।
এ সংক্রান্তে ব্যবসায়ী সঞ্জয় ধরের স্ত্রী রেখা ধর বাদী হয়ে ইপিজেড থানায় মামলা নং-২০, তাং-২৩/০৬/২০১৯ইং, ধারা-৩০২/৩৪দঃবিঃরুজুকরেন।

পরবর্তীতে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ বন্দর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার হামিদুল আলম এর’ সার্বিক দিক নির্দেশনায় অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর)আরেফিন জুয়েল, সহকারী পুলিশ কমিশনার (বন্দর), মোঃ কামরুল হাসান ও ইপিজেড থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোঃ নূরুল হুদা’ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে মামলার তদন্তকারী অফিসার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)এর নেতৃত্বে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে গত ২৪/০৬/২০১৯খ্রিঃ মামলার ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী প্রধান আসামী বিকাশ কান্তি মল্লিক প্রকাশ তপন মল্লিক(৫২)’কে গ্রেফতার করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় গ্রেফতারকৃত আসামী বিকাশের দেয়া তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে প্রযুক্তির সহায়তায় চট্টগ্রাম মহানগর ও চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে মামলার ঘটনার সাথে জড়িত অন্যতম আসামী মোঃ শফিউল উমাম প্রকাশ বাদশা (৩৭) ও ডাঃ বিশ্বজিৎ কে গ্রেফতার করে ইপিজেড থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত সকল আসামীরা মোটা অংকের আর্থিক লেনদেনকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ী সঞ্জয় ধরকে রাতের আধারে তার দোকানে প্রবেশ করে ধারালো ছোরা দিয়ে জবাই করে হত্যা করে মর্মে স্বীকার করে।

খবরের সূত্র: ইপিজেড থানা ওসিএমপি পুলিশ,চট্টগ্রাম।

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button