দেশে পৌঁছেছে ভারতের উপহারের অক্সিজেন প্ল্যান্ট

দেশে পৌঁছেছে ভারতের উপহারের দু’টি মোবাইল অক্সিজেন প্ল্যান্ট। ভারতীয় নৌবাহিনীর অফশোর টহল জাহাজ আইএনএস সাবিত্রী আজ বৃহস্পতিবার দু’টি মোবাইল অক্সিজেন প্ল্যান্ট নিয়ে চট্টগ্রামে পৌঁছেছে। এই প্ল্যান্টগুলোর অক্সিজেন উৎপাদন ক্ষমতা প্রতি মিনিটে ৯৬০ লিটার।

ভারতের ডিআরডিও দ্বারা নির্মিত প্ল্যান্টগুলো কোভিড মহামারীর মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করার জন্য উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে। একটি প্ল্যান্ট ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থাপন করা হবে এবং অপরটি বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে হস্তান্তর করা হয়েছে বিএনএস পতেঙ্গায় স্থাপন করার জন্য।

জানা গেছে, স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং অত্যাধুনিক এই প্ল্যান্টগুলো অত্যন্ত সাশ্রয়ী উপায়ে তাৎক্ষণিক মেডিকেল অক্সিজেন তৈরি করে। হাসপাতালে সরাসরি স্থাপনের পাশাপাশি এগুলো অক্সিজেন সিলিন্ডার রিফিল করার জন্যও ব্যবহার উপযোগী। প্ল্যান্টগুলো চিকিৎসা কাজে ব্যবহারের জন্য প্রেসার স্যুইং অ্যাবজর্পশন (পিএসএ) নীতিসহ জিওলাইট (মলিকুলার সিভ) প্রযুক্তি ব্যবহার করে মানসম্মত মেডিকেল অক্সিজেন উৎপন্ন করে।

এর আগে, আইএনএস সাবিত্রীর এই বাংলাদেশ সফর ২০২১ সালে ভারতীয় নৌবাহিনী জাহাজের দ্বিতীয় বন্দর পরিদর্শন, যখন ভারত ও বাংলাদেশ যৌথভাবে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে। চলতি বছরের মার্চে ভারতীয় নৌবাহিনীর দু’টি জাহাজ প্রথমবারের মতো মংলা সফরে এসেছিল যৌথভাবে মুজিববর্ষ উদযাপনের অংশ হিসেবে।

আইএনএস সাবিত্রী একটি অফশোর টহল জাহাজ যা ভারতের বিশাল এক্সক্লুসিভ ইকোনমিক জোনে টহল দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে এবং এটি নির্মাণ করেছে বিশাখাপত্তনমের হিন্দুস্তান শিপইয়ার্ড লিমিটেড। ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় নৌবহরের অংশ হিসেবে, আইএনএস সাবিত্রী বহর সহায়তা কার্যক্রম, উপকূলীয় এবং উপকূল থেকে দূরবর্তী টহল, সমুদ্রে নজরদারি এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার ওপর নজরদারি চালায়। জাহাজটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন কমান্ডার এন রবি সিং।

সফরকালে জাহাজের কোম্পানি তাদের বাংলাদেশি সমমর্যাপন্নদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবে এবং যাত্রার সময় ভারতীয় নৌবাহিনী এবং বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজগুলো আগামীকাল বঙ্গোপসাগরে প্যাসেজ মহড়ায় অংশ নেবে। বাংলাদেশ নৌবাহিনী এবং ভারতীয় নৌবাহিনীর জাহাজগুলো পারস্পরিক সফর একটি চলমান কার্যক্রম এবং এর মাধ্যমে ভ্রাতৃত্ব, বন্ধুত্ব এবং ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার মনোভাবকে দৃঢ়তর করতে সহায়তা করে।

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button