ভারতের জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমিতে ভর্তি হতে পারবে মেয়েরাও

জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমিতে এবার ভর্তি হতে পারবেন মেয়েরাও। সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে প্রশ্নের মুখে পড়ার পরই এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত ঐতিহাসিক পদক্ষেপ বলেই মনে করা হচ্ছে। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের।

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে এই সংক্রান্ত বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করা হয়। সেই পরিপ্রেক্ষিতে দেশের শীর্ষ আদালত কেন্দ্রীয় সরকারকে প্রশ্ন করে, ভারতীয় সেনায় মহিলারা নিয়োগ হচ্ছে, অথচ জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমিতে মহিলাদের ভর্তির ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে কেন?‌ দেশের শীর্ষ আদালতে যখন এই ধরনের মামলা চলছে, তখনই কেন্দ্র জানিয়েছে, আগামী বছর থেকে জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমিতে মহিলাদের জন্য আলাদা প্রবেশিকা পরীক্ষা নেওয়া হবে।

এর আগে শুধু পুরুষেরাই জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমিতে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেতেন। এবার থেকে নারীরাও সমান সুযোগ পাবেন। এই নিয়ম কার্যকর হওয়ার ফলে দ্বাদশ শ্রেণির পরই মেয়েরা জাতীয় প্রতিরক্ষা অকাডেমিতে যোগদানের জন্য যাবতীয় প্রস্তুতি নিতে পারবে।

শীর্ষ আদালতকে সহকারি সলিসিটর জেনারেল ঐশ্বর্য ভাটি জানান, একটা সুসংবাদ রয়েছে। গতকালই কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এবার থেকে মেয়েরা জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমিতে জায়গা করে নিতে পারবেন। তবে কেন্দ্রের তরফে শীর্ষ আদালতের কাছে আবেদন জানানো হয়, চলতি শিক্ষাবর্ষের ক্ষেত্রে পুরনো নিয়মই যেন বহাল থাকে। শীর্ষ আদালতের তরফে কেন্দ্রকে এই সংক্রান্ত বিষয়ে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর মামলার পরবর্তী শুনানি। তার আগে কেন্দ্রকে হলফনামা জমা দিতে হবে।

উল্লেখ্য, সাধারণত সেপ্টেম্বরে জাতীয় প্রতিরক্ষা আকাডেমির পরীক্ষা হয়। তবে এবারে নভেম্বরে সেই পরীক্ষা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button