প্রফেসর মাসুদা এমপি’র জানাযা ও দাফন সম্পন্ন


চট্টগ্রাম-ঢাকা-কক্সবাজার এর দায়ীত্বপ্রাপ্ত সংসদ সদস্য, বিরোধী দলীয় হুইপ, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির দায়িত্ব প্রাপ্ত, জাতীয় পার্টির সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর, বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. মাসুদা এম, রশীদ চৌধুরী এমপি’র চার দফা জানাযা শেষে রাউজানের গহিরায় পারিবারিক কবরস্থানে প্রিয় স্বামীর কবরে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়েছে। ঢাকার বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৩ সেপ্টেম্বর রাত ২ টায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ঢাকার মগবাজারের নিজ বাস ভবনে প্রথম নামাজে জানাজা, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে মরহুমার মরদেহ চট্টগ্রামের জুবিলী রোডস্থ বাসভবনে নিয়ে আসা হলে দলীয় নেতা-কর্মী, আত্মীয়-স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষীদের মাঝে এক হৃদয়বিদারক পরিবেশ সৃষ্টি হয়, সকলে কান্নায় ভেঙে পড়েন। গতকাল মঙ্গলবার বাদ যোহর চট্টগ্রামের জামিয়াতুল ফালাহ জাতীয় মসজিদে তৃতীয় এবং বাদ আছর রাউজান গহিরায় চৌধুরী বাড়ীর আঙ্গিনায় ৪র্থ নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে প্রিয় স্বামীর কবরে সমাহিত করা হয়। প্রতিটি জানাযায় মায়ের পক্ষে সকলের নিকট ক্ষমা ও দোয়া চান প্রফেসর মাসুদা এমপি’র একমাত্র পুত্র, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বিশেষ উপদেষ্টা ব্যারিস্টার সানজীদ রশীদ চৌধুরী। জানাযা সমূহে অংশ গ্রহন করেন, জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা ও জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জি,এম,কাদের এমপি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ডঃ আক্তারুজ্জামান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ডঃ মশিউর রহমান, বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, আহসান আদেলুর রহমান এমপি, আব্দুস সোবহান গোলাপ এমপি, ডিআইজি রুহুল কুদ্দুস আমীন, সাবেক মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, রাউজান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি গিয়াসউদ্দিন, আবাহনী ক্লাবের সভাপতি দিদারুল আলম চৌধুরী, জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল কবির দিদার, কমিশনার বাচ্চু, সাবেক কমিশনার আব্দুল মালেক, চট্টগ্রাম মহল্লা কমিটির সদ্দার আবদুল কুদ্দুস, জাতীয় পার্টি নেতা নাছির উদ্দিন ছিদ্দিকী, কাউন্সিলর মো. ইকবাল, বশির উদ্দিন খান, নজরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা ইরফান আহমেদ চৌধুরী, আবসার উদ্দিন রনি, কায়সার হামিদ মুন্না, হারুনুর রশীদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সমাজের সদস্য সচিব কাজেমুল হাসান শাহেদ, মহানগর ছাত্র সমাজ আহবায়ক সরিফুল মোল্লা নিরব, সদস্য সচিব আবু হানিফ নোমান। পরিবারের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মরহুমার একমাত্র ভাই শিল্পপতি আদনান মনসুর, এ,বি,এম,ফজলে শহীদ চৌধুরী, আফতাব রহিম চৌধুরী, ফজলে একরাম চৌধুরী, মাশফিক আহমেদ চৌধুরী, সাংসদপুত্র ব্যারিস্টার সানজীদ রশীদ চৌধুরী, সাংসদ পুত্র ফারাজ করিম চৌধুরী, মুকাররম চৌধুরী, ফাইক শহীদ চৌধুরী প্রমুখ। উল্লেখ্য, প্রফেসর মাসুদা রশীদ এমপি, চট্টগ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম আবুল মনসুর এর একমাত্র কন্যা এবং পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের বিরোধী দলীয় নেতা এ,কে,এম, ফজলুল কবির চৌধুরীর জ্যেষ্ঠপুত্র জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মরহুম এডভোকেট এ,বি,এম, ফজলে রশীদ চৌধুরীর সহধর্মিণী। রাউজানের চারবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য এ,বি,এম, ফজলে করিম চৌধুরী এমপি’র ভাবী। মরহুমা, এফ,বি,সি,সি,আই এর সর্বোচ্চ ভোটে নির্বাচিত পরিচালক ছিলেন। তিনি ছিলেন, সার্ক চেম্বার এর ভাইস প্রেসিডেন্ট, ইউনেস্কো ক্লাব অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট, ফাকসির ভাইস প্রেসিডেন্ট, নাসিবের ভাইস প্রেসিডেন্ট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোভার স্কাউট লিডার সহ বহুজনহিতকর কাজের সাথে জড়িত।

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button