প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বন্দর-পতেঙ্গা এলাকায় হাসপাতাল হচ্ছে

পতেঙ্গা-হালিশহর এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবী অত্র এলাকায় হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় স্থানীয় সাংসদ এম. এ. লতিফ’র আবেদনের প্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা ইপিজেড এলাকায় বেপজার নারী প্রজেক্টকে হাসপাতালে রূপান্তরের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। দেশের মানুষের মৌলিক চাহিদাপূরণে জাতির পিতার মত প্রধানমন্ত্রী যে সর্বদা সচেষ্ট অত্র এলাকায় হাসপাতাল স্থাপনের পদক্ষেপ তারই বহিঃপ্রকাশ। জনস্বার্থে স্থানীয় সাংসদের আবেদনে সাড়া দিয়ে শ্রমিক অধ্যুষিত ইপিজেড-পতেঙ্গা এলাকায় বহুল প্রত্যাশিত হাসপাতালের ঘোষণায় এম. এ. লতিফ এমপি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ। তিনি চট্টগ্রাম-১১ আসনের জনগণের পক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর ১০ অক্টোবর এম. এ. লতিফ এমপি হাসপাতালের জন্য নির্ধারিত এলাকা বেপজার নারী প্রজেক্ট পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন-বেপজা কর্তৃক ১২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫ একর জায়গার উপর বেপজার নারী প্রজেক্টকের আওতায় নির্মিত অব্যবহৃত ভবনগুলোকে হাসপাতালে রূপান্তরের বিষয়টি দেশরতœ শেখ হাসিনার সুনিপুণ দেশ পরিচালনায় দূরদর্শীতার পরিচয় বহন করে। তিনি অত্র এলাকায় হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় শুধু পতেঙ্গা-হালিশহর জনগণই নয় কর্ণফুলী টানেলের সুবাধে আনোয়ারা-বাঁশখালীর জনগণও উপকৃত হবেন বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। এম. এ. লতিফ এমপি গণতন্ত্রের মানসকন্যা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণপূর্বক সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। এম .এ লতিফ এমপি বর্তমান শেখ হাসিনা সরকারের জনকল্যাণে গৃহীত সকল পদক্ষেপ বাস্তবায়ন, সরকারের সফলতা ও শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু এবং সুস্বাস্থ্যের জন্য উপস্থিত সকলকে নিয়ে মহান আল্লাহর রহমত কামনা করে দোয়া করেন। ইপিজেড এলাকায় হাসপাতাল স্থাপনে এম. এ. লতিফ এমপি’র আন্তরিক প্রচেষ্টার জন্য চট্টগ্রাম-১১ আসনের জনগণ এমপি মহোদয়কে ধন্যবাদ জানান। হাসপাতালের এলাকায় পরিদর্শনকালে এম. এ. লতিফ এমপি’র সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন কর্নফুলী ইপিজেড’র মহা-ব্যবস্থাপক এনামুল হক, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক মিয়া, সদস্য কামরুল হাসান ভুলু, ৪১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব সালেহ আহম্মেদ চৌধুরী, ৪০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আওয়ামীলীগ’র সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল বারেক, ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন, সাবেক কাউন্সিলর মোঃ আসলাম ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন কবি এবং স্বাধীনতা নারী শক্তির নেত্রীবৃন্দ, ইপিজেড ও পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ চট্টগ্রাম-১১ আসনের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button