ভারতে হিন্দুদের সংখ্যা ও শক্তি কমছে: মোহন ভগবত

আবারও হিন্দুত্ব আবেগ উসকে দিতে চাইলেন উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘ (আরএসএস)-এর প্রধান মোহন ভগবত। শনিবার (২৭ নভেম্বর) মধ্যপ্রদেশের গ্বালিয়রের জিয়াজি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে তিনি বলেন, ভারতে হিন্দুদের সংখ্যা ও শক্তি দুটোই কমছে।

মোহন ভগবত বলেন, হিন্দু ছাড়া ভারত হতে পারে না। আবার ভারত ছাড়া হিন্দু হতে পারে না। এটাই হিন্দুত্বের মূল কথা। আর সেই কারণেই ভারত হিন্দুদের দেশ।’

আরএসএস প্রধান আরও বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন হিন্দুত্বের শক্তি ও সংখ্যা দুইই কমছে। অথবা বলতে গেলে হিন্দুত্ব নিয়ে আবেগ কমছে। যদি হিন্দুদের হিন্দু থাকতে হয়, তাহলে ভারতকে অখণ্ড হতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতিহাস সাক্ষী, হিন্দুরা যখনই তাদের নিজের ‘পরিচয়’ ভুলে গিয়েছে তখনই তারা সংকটের মুখোমুখি হয়েছে। আবার হিন্দুদের পুনরুজ্জীবন ঘটছে এবং বিশ্বব্যাপী ভারতের প্রতিপত্তি বাড়ছে। বিশ্ব তাকিয়ে আছে ভারতের দিকে।’

দেশভাগের কারণ সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, দেশভাগ হয়েছিল, তার কারণ আমরা ভুলে গিয়েছিলাম, আমরা হিন্দু। ঠারেঠোরে তিনি কংগ্রেসি উদারতাকেই দায়ী করলেন। অবশ্যই পরোক্ষভাবে। বলেন, ‘যারা নিজেদের হিন্দু বলে দাবি করত, প্রথমে তাদের শক্তিক্ষয় হয়েছিল। পরে তাঁদের সংখ্যাও কমতে শুরু করেছিল। আর সেজন্যই পাকিস্তান আর ভারতের অংশ হয়ে থাকেনি।’‌

এর আগে মোহন ভগবত বলেছিলেন, দেশের সব নাগরিকই হিন্দু। কারণ তাদের পূর্বপুরুষ এক। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button