মোদির দল ছেড়ে মমতার দলে শ্রাবন্তী?

‘বাংলার স্বার্থকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বিজেপির উদ্যোগ এবং আন্তরিকতার অভাব…’, এর জেরেই গত ১১ নভেম্বর ভারতীয় জনতা পার্টির সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করছিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। দুই সপ্তাহ পার হতে না হতেই তৃণমূলের সভামঞ্চে শ্রাবন্তী। তবে কি ফুলবদল করলেন নায়িকা? যোগ দিলেন তৃণমূলে? এই প্রশ্নই এখন পশ্চিমবঙ্গের  রাজনৈতিক মহলে।

আজ সোমবার বাসন্তী ব্লকের মসজিদবাটিতে তৃণমূলের দলীয় অনুষ্ঠানে সভামঞ্চে দেখা মিলল শ্রাবন্তীর। সেখানেই শেষ নয়, সভামঞ্চ থেকে তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ধন্যবাদও জানান নায়িকা।

এদিন বাসন্তীর এই সভায় হাজির ছিল ঘাসফুল শিবিরের পাঁচ বিধায়ক। শওকত মোল্লা, পরেশরাম দাস, সুব্রত মণ্ডলদের সামনেই শ্রাবন্তী জানান, ‘আমি বাংলার জন্য কাজ করতে চাই। বাংলারই মেয়ে আমি। মমতাকে অনেক ধন্যবাদ। আপনাদের কাছে অনুরোধ, আমায় আপন করে নিন। আমি আপনাদের জন্যই কাজ করতে চাই’।

এখানেই চমকের শেষ নয়, এদিন শ্রাবন্তীকে সভামঞ্চ দলীয় উত্তরীয় পরিয়ে দলের তরফে সম্মান জানানো হয়, ফলে স্পষ্ট বিজেপি ছাড়লেও রাজনীতির ময়দান থেকে সরতে নারাজ শ্রাবন্তী। বরং শিবির বদলে এবার মমতার ছত্রছায়ায় রাজনৈতিক কেরিয়ারকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চান।

শ্রাবন্তী আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন কি না, তা এখনো স্পষ্ট নয়। সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি অভিনেত্রী। তবে বাসন্তীর বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল জানান, ‘শ্রাবন্তী এখন তৃণমূলে, অন্য কোনো দলে নেই’। গোটা ঘটনায় তোলপাড় রাজ্য রাজনীতিতে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি পৌরনির্বাচনের আগেই তৃণমূল শিবিরে আরও তারকা প্রাপ্তি?

চলতি বছর বিধানসভা নির্বাচনের আগে আচমকা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, দিলীপ ঘোষের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন শ্রাবন্তী। কিন্তু ভোটের ফল বের হওয়ার পর দেখা যায়, বেহালা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূল প্রার্থী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে ৫০ হাজারেরও বেশি ভোটে পরাজিত হয়েছেন ঘরের মেয়ে শ্রাবন্তী। তারপর থেকেই বিজেপির সঙ্গে আলগা হয় শ্রাবন্তীর সম্পর্ক। এরপর আগস্ট মাসে নায়িকার জন্মদিনে মমতা ব্যানার্জি তাকে শুভেচ্ছা চিঠি পাঠান। এতে আপ্লুত হয়ে মমতার প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করেন শ্রাবন্তী। তারপর থেকেই শুরু হয়েছিল অভিনেত্রীর তৃণমূলে যোগদানের জল্পনা, আর সেই জল্পনায় আজ কার্যত সিলমোহর পড়ে গেল।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button