সিনেমা থেকে সৌদি আরবের আয় বেড়েছে তিনগুণ

সৌদি আরবে সিনেমা মুক্তিতে ৩৫ বছরের নিষেধাজ্ঞা উঠেছে মাত্র ৪ বছর হলো। তবে সংবেদনশীল ধর্মীয় বা রাজনৈতিক বিষয়, যৌনতা ও সমকামিতা স্পর্শ করে এমন সিনেমা দেশটিতে এখনো নিষিদ্ধ। পশ্চিম এশিয়ার সিনেমাগুলো সবচেয়ে বেশি মুক্তি পায় সেদেশে। বর্তমানে সৌদি আরবে ১৫৪টি সিনেমা হল চালু আছে।

এমন অবস্থায় সৌদি আরবের সিনেমাবাজার নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ভ্যারাইটি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিম এশিয়ার শীর্ষ সিনেমার বাজারে পরিণত হতে যাচ্ছে সৌদি আরব। ২০২০ সালে সৌদি আরবের সিনেমার বাজার থেকে আয় হয় ১৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এক বছরের ব্যবধানে সেই আয় বেড়েছে তিনগুণ। ২০২১ সালে সিনেমার বাজার থেকে সৌদি আরবের আয় ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩ হাজার ৮৫০ কোটি টাকার বেশি।

প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, সিনেমা পরিবেশক সংস্থা ভক্স ৩ বছর আগে সৌদি আরবে প্রবেশ করে। যারা এই ৩ বছরে দেশটির ছয়টি শহরে নতুন ১৫টি সিনেমা হল খুলেছে। বর্তমানে দেশটিতে ১৫৪টি সিনেমা হল চালু আছে, যাতে ৫০০ স্ক্রিনে সিনেমা প্রদর্শিত হয়। এরই মধ্যে সৌদি আরব তাদের বিনোদন খাতে ৬৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে।

এ ছাড়া এখন ড্যান্স মিউজিক ফেস্টিভ্যালের আয়োজনে জোর দিতে চায় সৌদি আরব। এরই মধ্যে রাষ্ট্রীয় অর্থায়নে দ্বিতীয়বারের মতো এমন একটি আয়োজন হয় দেশটিতে। যেখানে ১ লাখ ৮০ হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

Related Articles

Back to top button